“সময়মতো প্রয়োজন পূরণ হলেই সহজ হয় জীবন”

বিগত ২০ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ তারিখে দি কো অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়ন লীগ অব বাংলাদেশ কালব এবং মার্কেন্টাইল ব্যাংক এর মধ্যে মোবাইল ব্যাংকিং My Cash এর চুক্তি স্বাক্ষরিত হয় যার মাধ্যমে কালব মাইক্যাশ ন্যাশনাল ডিস্ট্রিবিউটর হিসাবে ব্যাংকের সাথে কাজ করবে। দুপক্ষের এই চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠান মার্কেন্টাইল ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়, মতিঝিলে অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানটিতে কালব এর পক্ষে চেয়ারম্যান(ভারপ্রাপ্ত) মোহাম্মদ আলী জিন্নাহ্, সেক্রেটারী এমদাদ হোসেম মালেক, প্রোগ্রাম এডভাইজার মোঃ হুমায়ুন খালিদ, জেনারেল ম্যানেজার(ভারপ্রাপ্ত) রোমেল এইচ ক্রুশ, সিনিয়র ম্যানেজার ফিরোজ আলম এবং মার্কেন্টাইল ব্যাংকের পক্ষে ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর আদিল রায়হান, ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর মোঃ জাকির হোসইন, সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান এবং মোবাইল ব্যাংকিং বিভাগের প্রধান মোঃ রফিকুল হক ভুইয়া এবং সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান ও সিটিও ও আইটি বিভাগের প্রধান উপস্থিত ছিলেন। এখন থেকে ক্রেডিট ইউনিয়ন ও ক্রেডিটি ইউনিয়নের সদস্যগণ মোবাইল ব্যাংকিং My Cash এর সুবিধা নিতে পারবে।

মাইক্যাশ হচ্ছে বিকাশ ও রকেট এর মত একটি মোবাইল ব্যাংকিং মাধ্যম। বাংলাদেশ ব্যাংক অনুমোদিত মার্কেন্টাইল ব্যাংক পরিচালিত একটি পূর্ণাঙ্গ মোবাইল সার্ভিস। এটি আধুনিক ব্যাংকিং সার্ভিস যার মাধ্যমে গ্রাহক যে কোন মোবাইল ফোনের মাধ্যমে মাইক্যাস হিসাব খোলে দেশের যে কোন প্রান্ত থেকে ব্যাংকিং সেবা নিতে পারবেন। টাকা লেনদেনের জ্ন্য মাইক্যাশ একটি দ্রুততম, সহজ এবং সুরক্ষিত মাধ্যম।

মাইক্যাশের মাধ্যমে যে সমস্ত কাজ করা যাবেঃ
১। মাই ক্যাশ ইন : মাইক্যাশ একাউন্টে টাকা জমা করা।
২। সেন্ড মানি : একটি মাইক্যাশ একাউন্ট থেকে আর একটি মাইক্যাশ একাউন্টে টাকা পাঠানো।
৩। মাই ক্যাশ আউট : মাইক্যাশ একাউন্ট থেকে মাইক্যাশ এজেন্টের মাধ্যমে টাকা তোলা।
৪। মাই টপ আপ : মাইক্যাশ একাউন্ট থেকে যেকোন মোবাইল অপারেটরে এয়ারটাইম রিচার্জ করা।
৫। মাই ক্যাশ ইনফো : মাইক্যাশ একাউন্ট এর বিস্তারিত তথ্য।
৬। মাইক্যাশ বিল : মাইক্যাশ এর মাধ্যমে ডিপিডিসি, ডেসকো, ওয়াসা বিল দেওয়া। (কিছু দিন পরই পল্লী বিদ্যুৎ বিল দেয়া যাবে)
৭। ভর্তি ফি : বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি ফি প্রদান করা।
৮। কমিশন : সাব-ডিস্ট্রিবিউটরদের ও এজেন্টদের সর্বোচ্চ কমিশন প্রদান। (অন্য মোবাইল ব্যাংক অপরেটদের চেয়ে বেশী)